আয়োজন নাগরিক সংবাদ

আয়োজন নাগরিক সংবাদ 

পলাশী দিবস: ইতিহাসের আলোকে ফিরে দেখা

আগামীকাল বুধবার ২৩ জুন, পলাশী দিবস। এই দিবস উপলক্ষে অনলাইনে বাংলাদেশ ইতিহাস অলিম্পিয়াড জাতীয় কমিটি আয়োজন করেছে ‘পলাশী দিবস: ইতিহাসের আলোকে ফিরে দেখা’ শিরোনামে শীর্ষ আলোচনার অনুষ্ঠান।

পলাশী দিবস: ইতিহাসের আলোকে ফিরে দেখা

রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহর প্রয়াণ দিবস

মাধবী কাল চ’লে যাবে...

ষাটের দশকের কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ আধুনিক বাংলা কবিতার আকাশে ক্ষণজন্মা নক্ষত্রমণ্ডলীর মতো অন্যতম একজন কবি হিসেবে পরিচিত। মাত্র ৩৫ বছরের জীবনে অনেকটা নিঃসঙ্গ কাব্যময় তাঁর জীবন।

মাধবী কাল চ’লে যাবে...

আমার বাবা: শিক্ষার স্বপ্নচারী

গোপালগঞ্জ ও নড়াইল জেলা দুটিকে আলাদা করেছে মধুমতী নদী। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের পাংখারচর গ্রামটি মধুমতী নদীর গাঁ ঘেষে।

আমার বাবা: শিক্ষার স্বপ্নচারী

বাবা দিবসে প্রবাসী শিল্পী গৌরী চৌধুরীর গান

বাবা দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং পৃথিবীর সব বাবাকে উৎসর্গ করে গান গাইবেন ব্রিটিশ-বাংলাদেশি কমিউনিটির অতি পরিচিত মুখ ও কণ্ঠশিল্পী গৌরী চৌধুরী। গানের শিরোনাম ‘বাবা তুমি ছাড়া ...

বাবা দিবসে প্রবাসী শিল্পী গৌরী চৌধুরীর গান

চাকরির পরীক্ষায় প্রবেশসীমা ৩২ করা সময়ের দাবি

করোনাভাইরাসের কারণে পৃথিবীর সবকিছু থমকে গেছে। পালাক্রমে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও আগের মতো কোনো রূপ নেই। পৃথিবীর সবকিছু রয়েছে নিস্তব্ধ, অচলাবস্থায়।

চাকরির পরীক্ষায় প্রবেশসীমা ৩২ করা সময়ের দাবি

ফুলেল বনৌষধি বৃক্ষ ফুটিকদম

আষাঢ়ে কেবল কদমই নয়, ফরিদপুরের আঙিনায় ফুটেছে দৃষ্টিনন্দন ফুটিকদম। চারটি বড় আকারের গাছ ছিল এখানে। দুটি কেটে ফেলা হয়েছে কাঠের রথ বানানোর জন্য। আকারে ছোট দুটি গাছ অবশিষ্ট রয়েছে।

 ফুলেল বনৌষধি বৃক্ষ ফুটিকদম

এ যেন লুকোচুরি খেলা

দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে সরকার সব পরিবহনের অর্ধেক যাত্রী বহনের নির্দেশ দেয়। এ জন্য ৬০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে যাত্রা ও যাত্রীদের ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে। যদিও বাসভাড়া বেশি নেওয়া হলেও ...

এ যেন লুকোচুরি খেলা

জনতার কামরানহীন সিলেটের এক বছর

১৫ জুন সিলেটবাসীর জন্য সবচেয়ে বেদনাদায়ক দিন। কারণ, এ দিনই সিলেট হারিয়েছে তার সবচেয়ে আপন মানুষকে। যে মানুষের নামের সঙ্গে সিলেট প্রতিশব্দের মতো! যাঁর নাম বদরউদ্দিন আহমদ কামরান।

জনতার কামরানহীন সিলেটের এক বছর

টেকসই বেড়িবাঁধ চায় উপকূলের মানুষ

দেশের অন্তত ৩৫ শতাংশ মানুষের বাস সমুদ্র–উপকূল অঞ্চলে। প্রতিবছর তাদের কেউ না কেউ হারাচ্ছে ঘর, হারাচ্ছে ফসলের জমি, হারাচ্ছে জীবন ও জীবিকা।

টেকসই বেড়িবাঁধ চায় উপকূলের মানুষ

আমাদের দেশটা কার?

লেখাপড়া করে বড় বড় ডিগ্রি হাঁকিয়ে পবিত্র দায়িত্ব নিয়ে চেয়ারগুলোতে বসতে লজ্জা করে না? কবরের কাফনের তো পকেট নেই যে টাকা, বাড়ি–গাড়ি, ক্ষমতা–প্রতিপত্তি ভরে নিয়ে যাওয়ার।

আমাদের দেশটা কার?
আরও