দুঃখজনক বিষয় হলো, এত গুরুত্বপূর্ণ স্থাপত্য এবং চারপাশে এত নিরাপত্তাকর্মী থাকা সত্ত্বেও এখানে প্রতিনিয়ত চলে চুরি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা। যেমনটা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সাম্প্রতিক সময়ে আমরা দেখলাম। কতটা ভয়াবহ ও বিপজ্জনকভাবে এই চক্র সাধারণ মানুষের ওপর চড়াও হয়ে আক্রমণ করতে চেয়েছে এবং করছে প্রতিনিয়ত, তা ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতেও দেখা যায়।

এমন সমস্যাগুলো বারবার ঘটার পেছনের অন্যতম কারণ প্রশাসনের অবহেলা। যেহেতু এসব চক্র একতাবদ্ধ হয়ে তাদের কর্মকাণ্ড সম্পাদন করে, তাই ওদের দু–একজনকে আইনের আওতায় আনলে থলের সব খবর বের করে আনা সম্ভব। এসব ছিনতাইকারী চক্রের উৎখাতের কোনো বিকল্প নেই। এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর ও শেরেবাংলা নগর থানার পুলিশের একতাবদ্ধ হয়ে পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি।

সুতরাং, মোহাম্মদপুরের আসাদগেটসহ আশপাশের এলাকা ছিনতাইকারীমুক্ত করা এখন সময়ের দাবি।

এ নিয়ে প্রশাসনের উচিত অতি দ্রুত যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া।

  • লেখক: মো. সায়েদ আফ্রিদী, শিক্ষার্থী, চতুর্থ বর্ষ, ঢাকা কলেজ