বাংলাদেশ মেডিকেল সোসাইটি অব নিউ সাউথ ওয়েলসের নতুন কমিটির সদস্যরা
ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে বাংলাদেশি চিকিৎসকদের সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল সোসাইটি অব নিউ সাউথ ওয়েলসের (বিএমএস) ভার্চ্যুয়াল বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় নতুন কমিটি ঘোষণা ছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার চিকিৎসাসেবায় বাংলাদেশি চিকিৎসকদের অবদান, অর্জন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করা হয়।

২০১০ সালে নতুন বাংলাদেশি চিকিৎসকদের অস্ট্রেলিয়ার চিকিৎসা খাতে যুক্ত হওয়ার প্রস্তুতিতে সহায়তা করার লক্ষ্যে দেশটির নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে বসবাসরত বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত জ্যেষ্ঠ চিকিৎসকেরা এ সংগঠন গড়ে তোলেন। বর্তমানে সংগঠনটিতে চার শতাধিক চিকিৎসক যুক্ত রয়েছেন। সংগঠনটি নবাগত চিকিৎসকদের পেশাগত সহযোগিতা, অস্ট্রেলিয়ান মেডিকেল কাউন্সিলের পরীক্ষা প্রস্তুতি, পেশাগত উন্নয়নমূলক সভা, দেশটির বাংলাদেশি কমিউনিটিতে স্বাস্থ্যসচেতনতাসহ বহুমুখী কাজ করছে।

এবারের অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় সংগঠনের নতুন কমিটির সভাপতি হয়েছেন মো. মিরজাহান মিয়া ও সায়েক খান হয়েছেন সাধারণ সম্পাদক। সহসভাপতি হালিম চৌধুরী, জাকির পারভেজ ও মেহেদী ফারহান; সহসাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ও ফয়জুর রেজা ইমন; কোষাধ্যক্ষ আমিন মুতাসিম; সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দীন; সমাজকল্যাণ ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক রিটন দাস; প্রকাশনা সম্পাদক মোহাম্মদ ফজলে রাব্বী; শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক হিসেবে ইশরাত জাহান নির্বাচিত হয়েছেন।

কার্যকরী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন রশীদ আহমেদ, শায়লা ইসলাম, ফখরুল ইসলাম, আয়েশা আবেদীন, গোলাম খুরশীদ, সাজেদুল ইসলাম, শাফিন রশীদ, হাবীব হাসান শিল্পী, শেখ হায়দার, আবদুল্লাহ আল মামুন, শেখ বদরুদ্দোজা, মুজাহিদ হাসান, নাইম সারওয়ার, ফারহানা রিমি, ফারাহ নাজ, আসিফ আলম ও সত্যজিৎ দত্ত। সব সদস্যের অংশগ্রহণ ও পরামর্শে ভবিষ্যতে নানামুখী কার্যক্রম আয়োজনের আশা ব্যক্ত করেন নতুন সভাপতি মো. মিরজাহান মিয়া। নতুন এ কার্যকরী কমিটি নির্বাচনের দায়িত্বে ছিলেন তিনজন চিকিৎসক রবিউল করিম, নূরুল ইসলাম ও তোজাম্মেল হোসেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদায়ী সভাপতি রশীদ আহমেদ।