উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ আহমেদ খলিফা বিন মোবারাক আল খলিফা বলেন, হ্যালো সুপারস্টারসকে প্রথম সারির ও বিশ্বের শক্তিশালী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পরিণত করার জন্য প্রয়োজনীয় বিনিয়োগে তিনি আগ্রহী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংগীতশিল্পী প্রতীক হাসান বলেন, ‘আমরা হ্যালো সুপারস্টারসের সঙ্গে আছি। হ্যালো সুপারস্টারসের মতো এত চমৎকার একটি মোবাইল অ্যাপ আমাদের বাংলাদেশি একজন তৈরি ও উদ্ভাবন করেছেন, এ জন্য আমরা অহংকার বোধ করি।’

default-image

সাংসদ মমতাজ বেগম বলেন, ‘এ অ্যাপ সময়ের দাবি, অ্যাপের মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে আপনারা আমাদের সঙ্গে সরাসরি সংযুক্ত হতে পারবেন এবং আমি সম্পৃক্ত হতে পারব, এই ভেবে উচ্ছ্বসিত।’

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বলেন, ‘হ্যালো সুপারস্টারস হবে হলিউড, বলিউড, টালিউড ও ঢালিউডের সুপারস্টারদের মিলনমেলা। আমি এই ইতিহাসের অংশ হতে পেরে আনন্দিত।’

চিত্রনায়ক ফেরদৌস, চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা, উপস্থাপিকা শান্তাসহ ভারত ও বাংলাদেশের অপর অংশগ্রহণকারীরা অ্যাপটির ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানে হ্যালো সুপারস্টারসের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন কামরুল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিল আফরোজ, ভার্সেটাইলো গ্রুপের গ্রুপ সিওও আব্বাস আল আশুর সালমান, ভার্সেটাইলো ইভেন্টসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুর মো. আবদুল মুকিত, পকেট-পে আমিরাতের সিওও মেজর হাসান মাহমুদ (অব.), ভার্সেটাইলো ভারতের পরিচালক জি এম জিয়াউর রহমান, দিল এক্সপ্রেস কার্গো সার্ভিসের মেজর মো. মুবাশ্বিরুল ইবাদ (অব.), খন্দকার ওয়াকিবুর রহমান, সারোয়ার হোসেন, হ্যালো সুপারস্টারস ভারতের পরিচালক অভিজিৎ দাস ও আশীষ জেইন।

default-image

ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের আদলে হলেও হ্যালো সুপারস্টারস দ্বিপক্ষীয় একটি সোশ্যাল নেটওয়ার্ক, যেখানে উভয় পক্ষ, অর্থাৎ সুপারস্টার ও তাঁর ভক্তরা একে অপরের সঙ্গে মনোবাসনা, সুখস্মৃতি ও সুন্দর সময় মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে আদান–প্রদান করতে পারবেন। ঢালিউড, হলিউড থেকে শুরু করে বলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রী, ক্রিকেটার, ফুটবলার, নৃত্যশিল্পী, সংগীতশিল্পী, শেফ, প্রযুক্তিবিদদের সঙ্গে আড্ডা, ভাববিনিময় ছাড়াও এর মাধ্যমে লার্নিং সেশন, লাইভ চ্যাট, বার্থডে গ্রিটিংস, মেধা যাচাইয়ের জন্য অডিশন প্রভৃতি কার্যক্রম চালানো যাবে।

প্রত্যেক সুপারস্টারের অনলাইন শোকেস থেকে তাঁদের অটোগ্রাফসহ সামগ্রী কেনাকাটার সুযোগ রাখা হয়েছে। এই করোনার সময়ে ভক্ত ও সুপারস্টারদের নিয়ে একটি মিলনমেলায় পরিণত হবে হ্যালো সুপারস্টারস। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের সম্পূর্ণ নতুনত্বের অভিজ্ঞতা পাবেন হ্যালো সুপারস্টারসের ব্যবহারকারীরা।

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন