বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সভাপতি আল মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মোহাম্মদ সরওয়ার মাহমুদ বলেন, পোশাক আর ক্রিকেট পাশাপাশি পদ্মা সেতু এখন বাংলাদেশকে বিশ্বে ব্র্যান্ডের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত সূচনা করেছে। প্রবাসীরা এর গর্বিত অংশীদার। প্রবাসের শত কর্মব্যস্ততার মধ্যে খেলাধুলা উন্নত ও সুস্থ মানসিকতা বজায় রাখবে। পাশাপাশি এগিয়ে চলার পথে প্রবাসীদের জন্য উদ্দীপক হিসেবে কাজ করবে।

default-image

২৫ জুন স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনকে স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের মানুষের মর্যাদা ও সক্ষমতার প্রতীক। দেশ স্বাধীন করার সময় যেভাবে গোটা জাতি এক হয়েছিল, সেভাবে পদ্মা সেতুর জন্যও দেশে-বিদেশে সবাই এক হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সময় যেভাবে দেশের মানুষ তার জন্য অপেক্ষা করেছিলেন, ঠিক সেভাবেই এখন দেশের মানুষ পদ্মা সেতুর জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। স্বাধীনতার পর একমাত্র পদ্মা সেতুর জন্যই আবারও গোটা জাতি এক হয়েছে। স্পেনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা খেলাধুলায় যাতে আরও উন্নতি করতে পারেন, সে জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন রাষ্ট্রদূত।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সাধারণ সম্পদ মুরাদ মজুমদার ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল আউয়াল খানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মুহতাসিমুল ইসলাম।

খেলা পরিচালন্যায় ছিলেন মো. হারুনুর রাশিদ, আবু বাক্কার ও কামিল আহমেদ সুবেল।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের ক্রীড়া সম্পাদক মো. সুমনের শুভেচ্ছা বক্তব্যে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সাবেক সভাপতি জামাল উদ্দিন মনির, কমিউনিটি নেতা নূর হোসেন পাটোয়ারী, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা এফ এম ফারুক পাভেল, ব্যবসায়ী আনোয়ারুল কবির পরান, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবূ বাক্কার, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনেরসহ ক্রীড়া সম্পাদক কামিল আহমেদ সুবেল।

দূর পরবাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন