অন্যদিকে সিজনাল ভিসায় বাংলাদেশসহ ৩১ দেশ থেকে ৪২ হাজার শ্রমিক আসতে পারবেন ইতালিতে। তবে ২০২০ সালের সিজনাল ভিসা এখনো তেমন একটা বের হতে দেখা যায়নি। সে ক্ষেত্রে এ বছর জমা দেওয়ার পর কতটা স্পনসর বের হবে, এ নিয়ে আশঙ্কা রয়েছে বিভিন্ন মহলে।

এ ব্যাপারে আইন পরামর্শক আনিচুজ্জামান আনিস বলেন, ইতালিতে ২৭ জানুয়ারি ঘোষিত নন-সিজনাল (স্পনসর) ভিসার আবেদন গত বছরগুলোর মতো উন্মুক্ত নয়। এবার এখানে শুধু তিন ক্যাটাগরিতে জমা দিতে পারবেন আগ্রহীরা। নির্মাণ খাত, ভারী যানবাহনের চালক, বড় আবাসিক হোটেল ও পর্যটনক্ষেত্রে আবেদন করতে পারবেন।

এখানে উল্লিখিত ক্যাটাগরির মালিকদের সঙ্গে বাংলাদেশি প্রবাসীদের তেমন সম্পর্ক নেই বললেই চলে। সে ক্ষেত্রে কৃষিকাজের সিজনাল ভিসার আবেদন করা অনেকটা সহজ। ভালো মালিক পেলে চার-পাঁচ মাসের ভেতর ভিসা পাওয়া সম্ভব।

*বিস্তারিত দেখতে এখানে ক্লিক করুন