সমাজের নানা অসংগতি, ক্ষমতার অপব্যবহার, দুর্নীতি, হয়রানি, সুশাসনের অভাবের মতো বিষয়গুলো খণ্ড খণ্ড আকারে ফুটিয়ে তোলা হয় এই প্রদর্শনীতে। অভিনয় করা শিক্ষার্থীদের একজন নাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘আমাদের মনে হয়েছে, সমাজের নানা অসংগতির মূলে রয়েছে ক্ষমতার অপব্যবহার। সবাই যার যার দায়িত্বে থেকে সঠিক কাজটি করলেই সমাজে কোনো অসুবিধা থাকবে না। প্রদর্শনীতে এসব বিষয় উঠে এসেছে।’

একই দিনে ক্যাম্পাসে আর্ট অব লিভিংয়ের আরেকটি ব্যাচের শিক্ষার্থীরা একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক বর্জনে প্রচার চালান। তাঁরা এ-সম্পর্কীয় নানা ধরনের প্ল্যাকার্ড, ব্যানার ব্যবহারের পাশাপাশি লিফলেট বিতরণ করেন। ‘ক্ষমতা’ নামের পারফর্মিং আর্টের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় ছিলেন আর্ট অব লিভিংয়ের শিক্ষক মো. খাইরুল ইসলাম।