বিতর্কে স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন বিভাগের অধ্যাপক এ কে এম মতিনুর রহমান। এ সময় বিচারক হিসেবে ছিলেন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক লুৎফর রহমান, অধ্যাপক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান ও অধ্যাপক মোহাম্মদ জুলফিকার হোসেন।

বিতর্কে সরকারি দলের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ছিলেন বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী সাদিকুর রহমান, মন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয় বর্ষের মুনতাকিম রহমান এবং সংসদ সদস্য হিসেবে তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফাতেমাতুজ জোহরা ইরানী। অন্যদিকে, বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে ছিলেন মাস্টার্সের শিক্ষার্থী শাহাব উদ্দিন ওয়াসিম, উপনেতা দ্বিতীয় বর্ষের আরিফা ইসলাম ও সংসদ সদস্য হিসেবে ছিলেন চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আশেক-এ-খোদা।

বিতর্কে সময় নিয়ন্ত্রক হিসেবে ছিলেন শাম্মি আকতার। বিভাগের শিক্ষার্থী সাদিয়া ফাতেমা মেঘলার সঞ্চালনায় এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির আহ্বায়ক নোমান ইবনে বাশার উপস্থিত ছিলেন। বিভাগটির বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সরকারি দলকে বিজয়ী ঘোষণা করেন বিচারকেরা। এ সময় সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ফাতেমাতুজ জোহরা ইরানীকে সেরা বিতার্কিক হিসেবে ঘোষণা করা হয়।