default-image

শত বছর পরেও বুকের গভীরে তোমাকেই স্মরি,
সত্য, ন্যায় প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশটাকে গড়ি।
তুমি নেই তবু আজও রয়েছে তব নীতি আদর্শ,
সে উন্নয়ন রেখায় পরিভ্রমণ করি বিশ্ব।

হঠাৎ কখনো কালবৈশাখী ঝড়ে তছনছ দেশ,
মাথা উঁচু করে দাঁড়ায় সুযোগ্যা কন্যা বেশ।
উত্তরাধিকারে পেয়েছিলেন বাবার মনোবল,
দেশের তরে একনিষ্ঠ কণ্ঠে তোলে কলরোল।

সোনার দেশের সোনালি ফসলের মাঠ উজ্জ্বল,
সবুজ শ্যামলিমা মাঠে প্রবাহিত বায়ু সুশীতল।
ফিরেছে কৃষকের মুখে অনাবিল হাসি বুকে বল,
জনগণের কর্ম কোলাহলে প্রাণ হয় চঞ্চল।

বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে সুনাম কুড়ায়,
সম্মানিত করেছে আমাদের রিজার্ভ মাথাপিছু আয়।
অর্থনৈতিক চাকা সচল রেখেছে করোনায়,
সামলে নেয় নারী উদ্যোক্তারা মন্দা ধাক্কায়।

বাংলায় আজও ভেসে আসে ধর্ষিতার চিৎকার,
জননী, কিশোরী, শিশু, বৃদ্ধা হয় বলাৎকার।
তুমি নাই তবু তোমার আদর্শের বুলি মুখে মুখে,
হয়তো তোমার কথার গভীরতায় থাকবে সুখে।

সে আশায় বুক বেঁধে আজ গেঁথে যাই কাব্যকথায়,
সোনার দেশে সোনার মানুষ হব তব চেতনায়।
বাংলার জনগণের প্রাণে উচ্চারিত নাম,
প্রিয় সে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

*লেখক: লিনা রহমান, মোহাম্মদপুর, ঢাকা

বিজ্ঞাপন
নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন