বিজ্ঞাপন

মানববন্ধনে সতিকসাস সভাপতি শামিম হোসেন শিশির বলেন, ‘আমরা দেখেছি, স্বাস্থ্যের এক কর্মকর্তা সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের গলা টিপে ধরেছেন। ওই কর্মকর্তা শুধু রোজিনা ইসলামের নয়, পুরো সাংবাদিক সমাজের গলা টিপে ধরেছেন। এই অন্যায়ের উপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। অনুসন্ধানী সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নিঃর্শত মুক্তি দিতে হবে, মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। জনগণের তথ্য জানার অধিকার আছে। সাংবাদিকেরা সে বিষয়টি নিয়ে কাজ করেন। সাংবাদিকদের সংবাদ প্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে হবে।’

সতিকসাসের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ বলেন, সাংবাদিকদের কাজ তথ্য প্রকাশ করা, কিন্তু তাঁদের আজ রাস্তায় প্রতিবাদ করতে হচ্ছে। দ্রুত রোজিনা ইসলামকে মুক্তি দিন, যাতে সাংবাদিকেরা কাজে ফিরে যেতে পারেন। অন্যথায় আন্দোলন চলতে থাকবে। ভবিষ্যতে যেন এভাবে কোনো সাংবাদিককে হেনস্তা করা না হয়, তার ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির দপ্তর সম্পাদক আহমেদ ফেরদাউস খান, সদস্য মামুন সোহাগ, মামুনুর রশিদ, মাইদুল ইসলাম, মামুনুর রহমান হৃদয়, আসিফ ইসলাম, সাইদুল ইসলাম প্রমুখ।

নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন