default-image

প্রায় পাঁচ মাস বন্দী থাকার পর অবশেষে মুক্ত আকাশে ডানা মেলল ১৬ শকুন। গত রোববার বিকেলে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সিংড়া জাতীয় উদ্যান থেকে শকুনগুলোকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবমুক্ত করা হয়।

গত বছরের নভেম্বর মাসের শুরুতে সিংড়া জাতীয় উদ্যানের শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যা কেন্দ্রে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার হওয়া বিপন্ন বিভিন্ন প্রজাতির শকুন আনা হয়। সেখানে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলার পর ১৬ শকুনকে ছেড়ে দেওয়া হলো মুক্ত আকাশে। শকুন অবমুক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর সামাজিক বন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা বশিরুল আল মামুন, সহকারী বন সংরক্ষক শাহিন কবির, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচার (আইইউসিএন) সহকারী প্রকল্প কর্মকর্তা সমীর সাহা, সিংড়া শালবন বিট কর্মকর্তা হরিপদ দেবনাথ প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

সমীর সাহা জানান, সিংড়া শালবনের শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যা কেন্দ্রটি উত্তরবঙ্গে প্রথম। ২০১৬ সালে প্রকল্পটির যাত্রা শুরু হয়। অনেক দূরের পথ পাড়ি দিয়ে আমাদের দেশে আসার সময় শকুনগুলো দুর্বল হয়ে লোকালয়ে নেমে যায়। এগুলোকে উদ্ধার করে বন বিভাগ এবং আইইউসিএন চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলে। জীবাণুমুক্ত করে পরে এদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

বশিরুল আল মামুন জানান, নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি তীব্র শীতের কারণে দেশের আটটি জেলা থেকে উদ্ধার করা শকুনগুলো চিকিৎসাসেবা দিয়ে সুস্থ করে তোলা হয়। বিপন্ন শকুন রক্ষায় আমরা চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। প্রকৃতির জন্য উপকারী এই পাখিটির অস্তিত্ব রক্ষায় প্রকল্পটি নেওয়া হয়েছে।

নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন