বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর জনতা টাওয়ারে সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক নতুন সংস্করণের মোড়ক উন্মোচনের পর এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘কেমন আছে ফ্রিল্যান্সার নাদিয়া’ গল্পটি দেশের আরও তরুণকে অনুপ্রেরণা দেবে, এসব সফল গল্প তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে কাজ করবে। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন গল্পটির লেখক রাহিতুল ইসলাম ও বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেনসহ অনেকে।

গল্পের প্রধান চরিত্র নাদিয়াকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করার পরেই পাত্রস্থ করেন তার অভিভাবক। আদরে থাকা নাদিয়া শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে মুখোমুখি হয় কঠিন বাস্তবতার। কিন্তু আর পাঁচটা মেয়ের মতো সংসারের চিরাচরিত নিয়মে অভ্যস্ত না হয়ে তিনি হয়ে উঠেছে একজন ফ্রিল্যান্সার। প্রতিকূল পরিবেশকে তোয়াক্কা না করে একটি মেয়ের ঘুরে দাঁড়ানোর এ গল্প নিশ্চয়ই দেশের আরও তরুণকে অনুপ্রেরণা দেবে, জোগাবে নতুন কিছু করার সাহস।

নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন