default-image

বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় গ্রুপ ‘বিডি গট ট্যালেন্ট’ (বিডিজিটি)। প্রত্যেক মানুষের মধ্যে লুকিয়ে থাকে প্রতিভা, সেটাকে প্রকাশ করার সুযোগ করে দেওয়ার উপযুক্ত প্ল্যাটফর্মের অভাবে। বিডি গট ট্যালেন্ট এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেটি মানুষকে সুযোগ করে দিয়েছে নিজেদের প্রতিভাকে বিকশিত করার।

২০২০ সালে ২২ এপ্রিল শুরু হওয়া গ্রুপটি পাঁচ লাখেরও বেশি সদস্য নিয়ে এখন বেশ জনপ্রিয়। গ্রুপের অ্যাডমিন আহসান তমাল বলেন, ‘করোনার শুরুতে বোরিং টাইম পাস করছিলাম। বাসায় বসে বসে তেমন কিছু করা হচ্ছিল না। হঠাৎ একদিন ছোট ভাই পূর্ণয় হক বলল এমন একটা গ্রুপ ক্রিয়েট করার কথা, যার মাধ্যমে মানুষ নিজেদের প্রতিভাকে তুলে ধরতে পারবে। সেই চিন্তা থেকে এই গ্রুপটি খোলা।’

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘আমার ট্যালেন্ট ছিল গান করা, টুকটাক লেখালেখি, আবৃত্তি করা আর পূর্ণয়ের ছিল গান করা, লেখালেখি, ফানি কনটেন্ট বানানো। গ্রুপের সদস্যরা আমাদের এতটাই আপন করে নিয়েছে যে প্রতিদিন এখন আমরা হাজারো পোস্ট পেয়ে থাকি, একদম শুরু থেকেই গ্রুপের সবার সক্রিয় অংশগ্রহণ আমাদের উদ্দেশ্য সফল করতে অনেকটা সহযোগিতা করেছে। কল্পনাও করতে পারিনি বাংলাদেশের আনাচকানাচে এত ট্যালেন্টেড মানুষের বসবাস। ভালো প্ল্যাটফর্মের অভাবে তারা সুযোগ পায়নি নিজেদের ট্যালেন্ট মানুষের সামনে তুলে ধরার, বর্তমানে বিডি গট ট্যালেন্টের মাধ্যমে নিজেদের ট্যালেন্ট সবার মাঝে তুলে ধরতে পারছে।’

বিডি গট ট্যালেন্টকে অনলাইনের পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন গ্রুপের অ্যাডমিন প্যানেলের সদস্যরা। তমাল আহসান একজন ইঞ্জিনিয়ার, ব্যবসায়ী ও গায়ক। গ্রুপে অ্যাডমিন প্যানেল হিসেবে কাজ করছেন ৫০ জন। প্রত্যেকেই আলাদা আলাদা সেক্টরে নিজেদের পরিচয় গড়ে নিয়েছেন।

  • লেখক: ফ্যাশন ডিজাইনার, রাত্রি’স ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড

নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন