বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

● উদ্বোধন করেন: আবদুল মোনায়েম খান, গভর্নর, পূর্ব পাকিস্তান।
● প্রাতিষ্ঠানিক অধিভুক্তি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
● অবস্থান: দক্ষিণ আলেকান্দা (South Alex City), বান্দ রোড, বরিশাল-৮২০০।
কলেজের আয়তন: ৩৩ হেক্টর বা ৮১.৫৪৫ একর (বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ ক্যাম্পাস বিশিষ্ট মেডিকেল কলেজ এটি)।
● স্নাতক: এমবিবিএস, বিডিএস।
● স্নাতকোত্তর: এমএস, এমফিল, ডিপ্লোমা।
● সেশনপ্রতি শিক্ষার্থীর সংখ্যা: এমবিবিএস-২৩০, বিডিএস-৫২ (এ ছাড়া প্রতি সেশনে কয়েকজন প্রবাসী শিক্ষার্থীও এখান থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে থাকেন)।
● মোট হল: ৮টি (৩টি ছাত্রদের জন্য, ৩টি ছাত্রীদের জন্য ও ২টি ইন্টার্ন ডাক্তারদের জন্য)।

● হাসপাতাল: ১ হাজার ৫০০ শয্যাবিশিষ্ট (কিন্তু প্রতিদিন রোগী ভর্তি থাকে ২ হাজারের অধিক। এ ছাড়া একটি নতুন ভবন প্রস্তাবিত রয়েছে)।
● কলেজের বর্তমান অধ্যক্ষ: ডা. মো. মনিরুজ্জামান শাহীন।
● হাসপাতালের বর্তমান পরিচালক: ডা. এইচ এম সাইফুল ইসলাম।
● স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসমূহ: সন্ধানী, মেডিসিন ক্লাব, যুব রেড ক্রিসেন্ট, বঙ্গবন্ধু ক্লাব।
● বিবিধ: কলেজটির অধীনে একটি নার্সিং ইনস্টিটিউট রয়েছে।
● সংক্ষিপ্ত নাম: শেবাচিম (SBMC)।

● শেবাচিম দিবস: ২০ নভেম্বর।
● ওয়েবসাইট: sbmc.edu.bd।
● ই-মেইল: [email protected], [email protected]

● ৫৩তম এসবিএমসি ডে উপলক্ষে এ মেডিকেল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ পুরো বরিশালবাসীর প্রাণের দাবি, অবিলম্বে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরিত করা হোক।

লেখক: মো. পারভেজ রহমান, ৫০তম এমবিবিএস ব্যাচ, ২০১৮-১৯ সেশন, শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ, বরিশাল।

নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন