default-image

লালমাই পাহাড়ের পাদদেশে নৈসর্গিক প্রকৃতির আপন কোলে সবুজের সমারোহে সগৌরবে দাঁড়িয়ে আছে দেশের ২৬তম পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়। ৫০ একরের সেই ক্যাম্পাসকে প্রায় ৫০ সদস্যের একদল প্রাণভোমরা অতন্দ্র প্রহরীর মতো লক্ষ রেখে যাচ্ছেন। ক্যাম্পাসের যেকোনো সাফল্য বা সম্ভাবনার কথা সবার কাছে পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি যেকোনো অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে কলম ধরেন উদ্যমী এই প্রাণভোমরারা। বলছি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের সংগঠন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের একদল নিবেদিতপ্রাণ সংবাদকর্মীদের কথা।

‘সর্বদা সত্যের সন্ধানে’ স্লোগান নিয়ে ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল শতাব্দী জোবায়ের ও নাহিদ হাসানের হাত ধরে ক্যাম্পাস সাংবাদিকতার যাত্রা শুরু করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব। এক পা দুই পা করে গত তিন বছরে অনেক বাধাবিপত্তি ও সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে আপন ছন্দে এগিয়ে যাচ্ছে সংগঠনটি। ক্যাম্পাসের সাফল্য ও অর্জনগুলো বিশ্বের মানুষের কাছে প্রতিনিয়ত তুলে ধরার মাধ্যমে কুবি ক্যাম্পাসকে ব্র্যান্ডিং করার পাশাপাশি ক্যাম্পাসের সব ধরনের অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্র সব রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে সমাধানের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নজরে নিয়ে আসছেন সংগঠনের নির্ভীক সদস্যরা। ক্যাম্পাসের কোনো ঘটনাই সময় মেপে ঘটে না। তাই ২৪ ঘণ্টাই তৎপর থাকেন সংগঠনের সদস্যরা। মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকলেও বন্ধ থাকেনি প্রেসক্লাবের সংবাদকর্মীদের কলমের লড়াই। সদস্যদের আপসহীন মনোভাব ও কর্মতৎপরতায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছে ক্যাম্পাসের আস্থার ও ভালোবাসার সংগঠন কুবি প্রেসক্লাব।

বিজ্ঞাপন

চতুর্থ বর্ষে পদার্পণে এই ক্ষণে সংগঠন সম্পর্কে জানতে চাইলে সংগঠনের সভাপতি মাহফুজ কিশোর বলেন, ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল থেকে দেখতে দেখতে সাফল্যের তিন বছর পেরিয়ে চতুর্থ বর্ষে পা রাখল প্রিয় সংগঠনটি। ক্যাম্পাসে নীতিমান সাংবাদিক তৈরিতে সংগঠনটি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এর পেছনে যেসব প্রাক্তনের অবদান আছে, তাদের এবং সংগঠনের সব শুভানুধ্যায়ীর প্রতি জানাই অশেষ কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা। ক্লাবের মেধাবী, ত্যাগী, উদ্যমী তরুণ সদস্যদের পরিশ্রমে আজ সংগঠন ধীরে ধীরে পূর্ণতা পেতে যাচ্ছে। মূলধারার সাংবাদিকতা চর্চার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি জাতির কল্যাণে নিবেদিত থেকেই আমরা কাজ করে যেতে চাই।

সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার নোবেন বলেন, ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা মূলত শেখার জন্য। ক্যাম্পাসের নানা দিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে তুলে ধরে নিজের দক্ষতাকে শাণিত করা ও আগামীর প্রস্তুতি নেওয়ার জন্যই ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা। মোহ ও লোভের বাইরে থেকে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা চালিয়ে যাওয়ার জন্য শিক্ষানবিশ সাংবাদিকদের একটি মিলনমেলা কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব। যার লক্ষ্য নৈতিকভাবে সাংবাদিকতা অনুশীলন। চতুর্থ বর্ষে পদার্পণের এই ক্ষণে প্রেসক্লাব এই ধারা অব্যাহত রাখবে বলেই প্রত্যাশা রাখছি।
*তানভীর আহমেদ রাসেল, শিক্ষার্থী, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়

নাগরিক সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন